শিরোনামঃ

» অশ্লীল ভঙ্গিতে নাচার ভিডিও ভাইরাল, ফাঁসলেন সেই শিক্ষক-শিক্ষিকা

প্রকাশিত: ২৯. নভেম্বর. ২০১৯ | শুক্রবার

নিউজ ডেক্স: প্রশিক্ষণ শিবিরে পড়াতে পড়াতে বোধহয় ক্লান্ত হয়ে গিয়েছিলেন! অতঃপর বিরতির সময়ে আনন্দ-ফুর্তি করতে গিয়ে শিক্ষকরা যা ঘটালেন, তাতে করে শিক্ষাস্থানে এমন কাণ্ড দেখে চক্ষু চড়কগাছ হয়েছে অনেকেরই। ক্লাসরুমের মধ্যেই উচ্চস্বরে বাজছে নাগিন ডান্স গানটি। আর এদিকে কার্পেটের উপর অঙ্গভঙ্গী করে নাচছেন শিক্ষক-শিক্ষিকা।

আর সেই ভিডিওই ভাইরাল হতে তুলকালাম কাণ্ড বাধে সেই স্কুলে। বহু তর্ক-বিতর্ক করেও শেষরক্ষা হয়নি তাদের। বরখাস্ত করা হয় এক শিক্ষককে। এবং শো-কজ নোটিস পাঠানো হয়েছে ওই দুই নাগিন নৃত্যরত শিক্ষক-শিক্ষিকাকে।স্কুলের মধ্যে এমন অশ্লীল ভঙ্গিতে নাচার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই অনেকেই প্রশ্ন তোলেন, শিক্ষকরাই যদি পড়াতে গিয়ে এমন কাণ্ড ঘটান স্কুলে, তাহলে ছাত্রছাত্রীরা কী করবে? ঘটনাটি অবশ্য ১০ দিন আগেকার। তবে সম্প্রতি ভাইরাল হতেই শোরগোল পড়ে। সরকারি স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিয়ে একটি প্রশিক্ষণ শিবির আয়োজিত হয়েছিল। আর সেখানেই টিফিনের সময় এমন কাণ্ড ঘটান তাঁরা। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের রাজস্থান জয়পুরের জালোরে।দু’জন পুরুষ-মহিলার এমন নাচের ভঙ্গি দেখে অনেকেই ‘অশ্লীল’ বলে মন্তব্য করেছেন। তার উপর যদি এমন ঘটনা ঘটে শিক্ষাঙ্গনে, তাহলে তো সমালোচনার মুখে পড়াটাই স্বাভাবিক, বলছেন নেটিজেনরা। এই ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই অশোক রোয়েশওয়াল নামে জালোরের শিক্ষাদপ্তরের এক কর্মকর্তা জানান, এই নাচের মূল উদ্যোক্তা যে শিক্ষক, তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। আর বাকি দু’জনকে শো-কজ ধরানো হয়েছে। এই দু’জনকে আসলে দিন কয়েক আগেই নিয়োগ করা হয়েছিল। তাই তারা সরকারি স্কুলের নিয়মকানুন জানেন না। আর সেজন্য একটা সুযোদ দেওয়া হবে তাদের। নাচ বা কোনও অ্যাক্টিভিটিজ আয়োজনে কোনও ক্ষতি নেই, তবে তা শৃঙ্খলার মধ্যে হওয়াই বাঞ্ছনীয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩০৯ বার

[hupso]