শিরোনামঃ

» ইতিহাসে নজিরবিহীন অ্যাসিড হামলা দিল্লীতে ২৭ জন নিহত!চোখ হারিয়েছে ৪ জন!

প্রকাশিত: ২৭. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | বৃহস্পতিবার

 

অ্যাসিড হামলায় দৃষ্টি হারিয়েছেন কমপক্ষে চারজন। খুরশিদ নামে এক জনের দু’চোখই নষ্ট হয়ে গিয়েছে। ওই ব্যক্তি তেগ বাহাদুর হাসপাতাল থেকে লোকনায়ক জয়প্রকাশ হাসপাতালে আসার জন্য অ্যাম্বুল্যান্স পর্যন্ত পাননি। রিকশায় এসেছেন। দুই চোখ-সহ পুরো মুখ ঝলসে গিয়েছে ওয়কিলের। ফলে এটা স্পষ্ট, পরিকল্পিত এই দাঙ্গায় আগুন লাগানো, পাথরবাজি, গুলির সঙ্গে চালানো হয়েছে অ্যাসিড হামলাও। এমনকি পুলিশকেও নাকি অ্যাসিড হামলার মুখে পড়তে হয়েছিল।

দিল্লির গুরু তেগ বাহাদুর হাসপাতাল এবং জগ প্রভাস চন্দ্র হাসপাতালের চিকিৎসকরা বলছেন, গুলিবিদ্ধ, ধারালো অস্ত্রের আঘাত, পাথরের আঘাত, ভারী কোনো জিনিসের আঘাত এবং দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছেন ভুক্তভোগীরা।

তারা আরো বলছেন, নিহত ২৭ জনের মধ্যে ১৪ জনই গুলিবিদ্ধ হয়েছিলেন। চিকিৎসকরা যে ধরনের আঘাতের বর্ণনা দিচ্ছেন এবং প্রত্যক্ষদর্শীরা যা বলছেন, তার ভিত্তিতে বিশেষজ্ঞদের মত হলো- এই সংঘর্ষে দেশীয় অস্ত্রের ব্যবহার ব্যাপক।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেছেন, গত রবিবার দিল্লি-উত্তরপ্রদেশ সীমান্ত কিছুটা বন্ধ রাখা হয়েছিল। কিন্তু সংঘর্ষের ঘটনার দিকে লক্ষ্য রেখে মঙ্গলবার বিকেল থেকে একেবারে বন্ধ করে দেওয়া হয়।
ভারতে তৈরি পিস্তল, রাম দা, হাতুড়ি, কাস্তে, বেসবল ব্যাট, লাঠি ও পাথর নিয়ে হামলা চালাচ্ছেন উগ্র হিন্দুত্ববাদীরা।
পুলিশ বলছে, সংঘর্ষের সময় যে পিস্তলগুলো ব্যবহার করা হচ্ছে, সেগুলো ভারতেই তৈরি। সম্ভবত উত্তরপ্রদেশ থেকে সেসব কিনে নিয়ে আসা হচ্ছে। শ্যামলী এবং মুজাফফরনগর থেকেও কিনে নিয়ে আশার শঙ্কা রয়েছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৭৭ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
নিউজ ডেক্সঃ মোবাইলের ক্ষুদে বার্তায় শার্শায় ভ্রাম্যমাণ আদলত পরিচালনা করে…