শিরোনামঃ

» করোনা সংক্রমণ হার বৃদ্ধি পাওয়ায় বাগেরহাটে কাল থেকে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা

প্রকাশিত: ২৩. জুন. ২০২১ | বুধবার

বিশেষ প্রতিনিধি।।বাগেরহাট জেলার করোনা সংক্রমণ হার বৃদ্ধি পাওয়ায় আগামীকাল ২৪ জুন  থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত এক সম্পাহের লগডাউন ঘোষণা করেছে জেলা প্রশাসন।

২৩ জুন বুধবার করোনা প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা মনিটরিং কমিটির এক ভার্চুয়াল সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক জেলা প্রশাসন এ লগডাউন ঘোষণা করেছে।

ঘোষণা অনুযায়ী ২৪ জুন বৃহস্পতিবার  সকাল ৬ টা হতে ৩০ জুন মধ্যরাত পর্যন্ত বাগেরহাট জেলার সার্বিক কার্যাবলী  এবং চলাচলে বেশ কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

বিধি-নিষেধের মধ্যে রয়েছে সকল গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। কেবল সরকারি, আইনশৃঙ্খলা এবং জরুরি পরিসেবা, যেমন- কৃষি উপকরণ (সার, বীজ, কীটনাশক,কুষি যন্ত্রপাতি ইত্যাদি), খাদ্যশস্য ও খাদ্যদ্রব্য পরিবহন, ত্রাণ বিতরণ,স্বাস্থ্য সেবা, কোভিড-১৯ টিকা প্রদান,বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, জ্বালানী, ফায়ার সার্ভিস, নদীবন্দর সমূহের কার্যক্রম, টেলিফোন ও ইন্টারনেট (সরকারি-বেসরকারি), গণমাধ্যম (প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া)বেসরকারি নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ডাক সেবা সহ অন্যান্য জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় পণ্য ও সেবার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট অফিস সমূহ, তাদের কর্মচারী ও যানবাহন এবং পণ্যবাহী ট্রাক/লরি এ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহিভুর্ত থাকবে।
তবে ওষুধের দোকান ব্যাতীত সকল ধরণের দোকান পাট,মার্কেট ও শপিংমল বন্ধ থাকবে।
এছাড়াও সাপ্তাহিক হাট ও গরুর হাট বন্ধ থাকবে।কাঁচাবাজার ও নিত্য প্রয়োজনীয় (মুদিদোকান) পণ্যের দোকানপাট, খাবারের দোকান ও হোটেল রেস্তোরা যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।
খাবারের দোকান ও রেস্তোরা  কেবল খাবার বিক্রয় অথবা সরবরাহ করতে পারবে। হোটেলে বা খাবার দোকানে বসে খাওয়াতে পারবে না। এছাড়া সকল পর্যটন কেন্দ্র, রিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে। জনসমাবেশ হয় এ ধরণের সামাজিক অনুষ্ঠান (বিবাহোত্তর ওয়ালিমা  জন্মদিন, পিকনিক, পার্টি ইত্যাদি), রাজনৈতিক ও ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠান বন্ধ থাকবে।
কাঁচাবাজার জনাকীর্ণ  স্থান হতে খোলা জায়গায় স্থানান্তর করতে হবে এবং ক্রেতা-বিক্রেতার স্বাস্থ্য
বিধি নিশ্চিত করতে হবে।
জুমার নামাজসহ প্রতি ওয়াক্ত নামাজে ২০ জন মুসল্লীর বেশি অংশগ্রহণ করতে পারবে না।
তাছাড়া এক মুসল্লী হতে অন্য মুসল্লীর মধ্যে কমপক্ষে ৩ ফুট দুরত্ব বজায় রাখতে হবে।
অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে অনুরুপ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে হবে।
বিভিন্ন দেশ থেকে মোংলা বন্দরে আগত পশুর নদীতে অবস্থানকারী কোন জাহাজ হতে কোন ব্যাক্তি মোংলা বন্দরে নামতে পারবে না।
উপরোক্ত বিধি-নিষেধ আরোপ করে বাগেরহাট জেলা প্রশাসক  মোহাম্মাদ আজিজুর রহমান স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে এবং কার্যার্থে এর অনুলিপি জেলা, উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরণ করা হয়েছে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫০ বার

[hupso]