শিরোনামঃ

» কাজিপুরের চালিতাডাঙ্গা ইউপি নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে রয়েছেন শাহীন আলম

প্রকাশিত: ২৫. ফেব্রুয়ারি. ২০২১ | বৃহস্পতিবার

মিজানুর রহমান মিনু কাজিপুর সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ।সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার চালিতাডাঙ্গা ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে মাঠে রয়েছেন তুখোড় সাবেক ছাত্র নেতা বর্তমান চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন আলম।

চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের সহজ সরল প্রকৃতির একজন আওয়ামীগ সমর্থক মুরুব্বী মোঃ শফিকুল ইসলামের সুযোগ্য পুত্র সাবেক ছাত্র নেতা বর্তমান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহীন আলম।

তিনি চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন বাসির পাশে থেকে কাজ করার প্রত্যাশা নিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহন করতে ইউনিয়নের জনসাধারণের মাঝে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

সংগ্রামী এই আওয়ামীলীগ নেতাকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রতিক নৌকার মাঝি হিসেবে দেখতে চায় ইউনিয়ন বাসি এমন আশা শাহীন আলমের।

নিজেকে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসেবে চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের সকল শ্রেণির মানুষের কাছে দোয়া ও সমর্থন পাওয়ার জন্য জোরালো ভাবে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন শাহীন আলম।

সিরাজগঞ্জ কাজিপুরের গন মানুষের নেতা ভাগ্য উন্নয়নের চাবিকাঠি একমাত্র ঠিকানা তারুণ্যের অহংকার সিরাজগঞ্জ ১আসনের সাংসদ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়ের প্রতি শত ভাগ আস্থা ও বিশ্বাস রেখে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে ইতিমধ্যে অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে থেকে সমাজসেবা মূলক কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করছেন।

শাহীন আলম একজন তুখোড় ছাত্রনেতা ছাত্র রাজনীতি থেকে বিএনপি জামাতের বিরুদ্ধে আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমে নিজেকে গড়ে তুলেছেন একজন কর্মী বান্ধব সৎ যোগ্য নেতা হিসেবে। প্রতিবাদী কণ্ঠস্বর ও পরোপকারী সৎ ব্যক্তি, জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত হলে উপকৃত হবে ইউনিয়নের সকল সাধারণ জনগন।

সারাক্ষন অসহায় মানুষের পাশে থেকে তাদের সেবা করছেন পিতার আদর্শে বেড়ে ওঠা তরুণ এই নেতা তাঁর দক্ষ নেতৃত্ব ও যোগ্যতা দিয়ে ইউনিয়ন বাসির সেবা করতে প্রস্তুত।

চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী দলীয় প্রতিক নৌকার প্রত্যাশী শাহীন আলম বলেনঃ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমার রাজনৈতিক আদর্শ, বঙ্গকন্যা বিশ্বমানবতার মা, জননেত্রী দেশরত্ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার রুপকার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকারের প্রয়াত জাতীয় নেতা একাধিক মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করা সাবেক সফল স্বাস্থ্য মন্ত্রী আলহাজ্ব মোহাম্মদ নাসিম সাহেব আমার রাজনৈতিক শিক্ষা গুরু এবং সিরাজগঞ্জ ১ আসনের সাংসদ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয় আমার রাজনৈতিক মাঠের অনুপ্রেরণা।

২০০১সালে বিএনপি জামাত জোট সরকার কর্তৃক বারবার নির্যাতিত হয়েছি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সকল প্রকার জেল জুলুম হুলিয়াকে অপেক্ষা করে বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ করে রাজনীতির মাঠে অবস্থান করেছি।আমার পুরো পরিবার বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শের অনুসারী।

সিরাজগঞ্জ ১আসনের সাংসদ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয়ের প্রতি শতভাগ আস্থা ও বিশ্বাস রেখে বলেন আমি শতভাগ আশাবাদী দল আমাকে নৌকা প্রতিক উপহার দিয়ে মূল্যায়ন করবে।

শাহীন আলমের রাজনীতিতে প্রবেশ।।

পঞ্চম শ্রেনীতে পড়াকালিন মাইকে বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণ শুনে শুরু হলো রাজনীতির মাঠ।

১৯৯৬ এর নির্বাচন পূর্ববর্তী সময়ে চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্র লীগের (গোলাম সরোয়ার, আবু তাহের) পরিষদের সদস্য পদ লাভ করে,
তখন থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে ছাত্র রাজনীতি শুরু করে।

২০০২সালে কাজিপুর উপজেলা ছাত্র লীগের (শফিকুল ইসলাম, জিয়াউর রহমান স্বাধীন) পরিষদের সদস্য পদ লাভ করে।

২০১১ সালে কাজিপুর উপজেলা ছাত্র লীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হয়।

২০১২ সালে সিরাজগঞ্জ জেলা ছাত্র লীগের ( আসাদুজ্জামান সোহেল, জাকির হোসেন) পরিষদের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে নির্বাচিত হয়।

২০১৫ সালে কাজিপুর উপজেলা ছাত্র লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়ে ২০১৮ সাল পর্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে।

২০১৮ সালে চালিডাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয় তখন থেকে অদ্যাবধি দক্ষতার সঙ্গে সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেনইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করেন শাহীন আলম।

২০২০ সালে জাতীয় নেতা প্রয়াত মোহাম্মদ নাসিমের মৃত্যুতে সিরাজগঞ্জ ১ শূন্য আসনে নাসিম পুত্র সিরাজগঞ্জ কাজিপুরের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নের চাবিকাঠি একমাত্র ঠিকানা তারুণ্যের অহংকার ডিজিটাল কাজিপুর গড়ার রুপকার সাংসদ প্রকৌশলী তানভীর শাকিল জয় কে উপনির্বাচনে নৌকার মাঝি হিসেবে দলীয় প্রার্থী করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা।

উপনির্বাচনে তানভীর শাকিল জয় কে বিজয় করতে
সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে ইউনিয়নের পুরো নেতা কর্মীদের সংগঠিত করে, ভোটের মাঠে তাদের উদ্বুদ্ধ করে শাহীন আলম তারই ফলশ্রুতিতে উপজেলার মধ্যে ইভিএম ভোটের বিপ্লব ঘটে তার ইউনিয়নে।

সিরাজগঞ্জ ১আসনে ১টি পৌরসভা মোট ১৭টি ইউনিয়ন মোট১৮টি নির্বাচনী ইউনিটের মধ্যে চালিতাডাঙ্গা ইউনিয়ন শতকরা ৬১,৪৯ শতাংশ ভোট দিয়ে নৌকার বিজয় করে প্রথম স্থান অর্জন করে তারা।।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৩৩ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
বিশেষ প্রতিনিধি।। ঝিকরগাছা বাজার থেকে ৮বছর বয়সের এক শিশু নিখোঁজ। এ…