এ ঘটনায় নবজাতকের মা-বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

অভিযুক্ত দম্পতি হল নাটোর সদর উপজেলার নেগুড়িয়া এলাকার আব্দুল্লাহ রাজ্জাকের ছেলে রাজিব এবং লালপুর উপজেলার আব্দুলপুরের বড়বাড়ীর এলাকার আবু সুফিয়ানের মেয়ে সুইটি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম জানান, ৯ ডিসেম্বর হাসপাতালে ভর্তি হন রাজিব পত্নী সুইটি। বৃহস্পতিবার রাতের কোনও এক সময় সুইটি হাসপাতালের মহিলা ওয়ার্ডের বাথরুমে বাচ্চা প্রসব করেন। পরে সুইটি তার সদ্য জন্ম নেওয়া বাচ্চার মৃতদেহ জানালা দিয়ে ফেলে দিলে তা জানালার কার্নিশে আটকে যায়।

সকালে বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের নজরে এলে পুলিশে খবর দেওয়া হয় ।