শিরোনামঃ

» ঝিকরগাছার পল্লিতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ

প্রকাশিত: ১৬. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | রবিবার

বিশেষ প্রতিনিধি : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার কুমরী গ্রামে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ১৪ বছরের এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পর ভিকটিম বিয়ের দাবীতে বাড়ীতে উঠলে তাকে বাড়ী থেকে বের করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, উপজেলার ঝিকরগাছার কুমরী গ্রামের অহেদ আলীর ছেলে শাহাজান কবির একই গ্রামের মিজানুর রহমানের স্কুল পড়ুয়া মেয়েকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দু বছর যাবত শারীরিক মেলামেশায় লিপ্ত হয় । দু বছর তার সাথে দৈহিক মেলামেশার পর ধর্ষিত মেয়ে শাহাজানকে বিয়ে করার জন্য চাঁপ প্রয়োগ করেন । এমন কি তাকে বিয়ে না করলে সে বিষ খেয়ে আত্নহত্যা করবে বলে জানান। কিন্তু তখন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে লম্পট শাহাজান।

ধর্ষিতার মা কান্না জড়িত কন্ঠে আকুতি করে বলেন, আমার মেয়ের সরলতার সুযোগ নিয়ে শাহাজান আমার মেয়েকে একাধীকবার ধর্ষণ করেছে। এখন বিয়ে করতে চায়না।আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই।

ধর্ষিতার পিতা মিজানের কাছে বিচারের ব্যাপারে জানতে চাইলে ঘটনার সত্যতা শিকার করে তিনি জানান বিষয়টি আমাদের মেম্বারের অপেক্ষায় আছি।

স্থানীয় ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান,বিষয়টি আমি শুনেছি।তবে শোনা কথা জানতে পারি শাহাজান জড়িত না।

এ ব্যাপারে বাঁকড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ওসি শেখ শাহিনুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান এ বিষয়ে কোন অভিযোগ পাইনি।অভিযোগ পেলে ব্যবস্হা নেব।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩২৬ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
আসাদুজ্জামান নয়নঃ যশোরের শার্শার বাগআঁচড়া ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত…