শিরোনামঃ

» ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দ্যোক্তার কক্ষে তালা ভেঙ্গে ভাংচুর

প্রকাশিত: ১৬. মার্চ. ২০২০ | সোমবার

নিজেস্ব প্রতিনিধি :
ঝিকরগাছার শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দ্যোক্তার রুমের তালা ভেঙ্গে ভাংচুর করেছে দূবৃত্তরা। এসময় তারা রুমটি জোরপূর্বক দখলে নিয়ে নতুন তালা লাগিয়ে দিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার দিবাগত রাতে।

এ ব্যাপারে স্থানীয় সরকার বিভাগ, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ঝিকরগাছা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে লিখিত ভাবে অবহিত করা হয়েছে। জানাগেছে, ঝিকরগাছা উপজেলা শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদে উদ্দ্যোক্তার হিসাবে ২০১১ সাল থেকে কাজ করে ইউনিয়ন বাসীর সেবা দিয়ে আসছে শংকরপুর গ্রামের আব্দুল করিমের ছেলে মিজানুর রহমান ও কুলবাড়িয়া গ্রামের আমজেদ আলীর মেয়ে পারভীনা খাতুন। প্রতিদিনের ন্যায় রোববারও সারা দিন কাজ করে তারা বাড়ি গেলে হটাৎ ওইরাতে ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা নিছার আলীর নেতৃত্বে ইউনিয়নের দরিদ্রাপোতা গ্রামের মৃত শরিফুল ইসলাম বাবুর ছেলে রুনা, সেকেন্দারকাটি গ্রামের হাবিবর রহমানের ছেলে নয়ন রেজা, বকুলিয়া গ্রামের আহম্মদ আলীর ছেলে তুহিন হোসেন সহ ৮/১০ দূবৃত্ত অতর্কিত ভাবে রাতের আধারে হামলা চালিয়ে উদ্দ্যোক্তার রুমের তালা ভেঙ্গে ভাংচুর করে নতুন তালা লাগিয়ে জোরপূর্বক দখলে নেয়। পরে স্থানীরা বিষয়টি দেখে ছুটি এলে দূবৃত্তরা পালিয়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের উদ্দ্যোক্তা মিজানুর রহমান ও পারভীনা খাতুন সরকার বিভাগ, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ঝিকরগাছা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে লিখিত অভিযোগ করেছেন। এব্যাপার শংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিছার উদ্দিন বলেন, আমি পাশের ঘরে ছিলাম। উপজেলা চেয়ারম্যান নয়ন ও বকুলিয়ার একটি ছেলেকে নিয়োগ দিয়েছে। তারা এঘটনাটি ঘটিয়েছে। উদ্দ্যোক্তার নিজানুর রহমানকে অব্যাহতির কোন কাগজ তিনি হাতে পাইনি বলে জানান।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২০১ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
আইসক্রিম বিক্রি করতে গেলে পুলিশ নিষেধ করছে, বাঁধা দিচ্ছে। এদিকে,…