শিরোনামঃ

» ঝিকরগাছায় ইউপি সদস্য লিটন হত্যা মামলায় আটক সাইফুলের আদালতে জবানবন্দি

প্রকাশিত: ২২. জুন. ২০২১ | মঙ্গলবার

বিশেষ প্রতিনিধি।। যশোরের ঝিকরগাছায় বোমা তৈরীর সময় বিস্ফোরণে নিহত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য নাজমুল আলম লিটন হত্যা মামলায় আটক সাইফুল ইসলাম আদালতে স্বিকারোক্তি মূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আটক সাইফুল ইসলাম সাগর ঝিকরগাছার বরুনহাল গ্রামের আলী বক্স দপ্তরির ছেলে। নিহত লিটন পাঁচপোতা গ্রামের ওহাব মোড়লের ছেলে।

জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুদ্দীন হোসাইন আসামির জবানবন্দি গ্রহন শেষে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

আদালত সূত্র জানায়, সাইফুল জানিয়েছেন তিনি ঢাকাতে আইনজীবী সহকারীর কাজ করতেন। ছুটিতে বাড়িতে এসে লিটনের সাথে পাঁচপোতা গ্রামের মৃত রফিক মেম্বারের বাড়িতে ছিলেন।

এসময় টেপদিয়ে মোড়ানো পরিত্যক্ত একটা বস্তু পায় লিটন। যার টেপ খোলা শুরু করে লিটন। কিছু সময়ের মধ্যে তা বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়।

লিটনের রক্তাক্ত শরীর দেখে তিনি পালিয়ে যায় বলে আদালতকে জানায় সাইফুল।

এ ঘটনায় আহত লিটন ও সাইফুলকে আসামি করে বাঁকড়া তদন্ত কেন্দ্রের এসআই কাজী সাইদুজ্জামান বাদী হয়ে ঝিকরগাছা থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলা করেন।

এদিকে, আহত লিটনের অবস্থার অবনতি হলে তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে লিটনের মৃত্যু হয়।

পরে মামলাটি বিস্ফোরকের সাথে হত্যার অভিযোগ যুক্ত হয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সাইফুলকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করে। তিনি আদালতে জবানবন্দি দেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯৩ বার

[hupso]