তিনি বলেন, ‘দেশে করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রয়েছে বলেই আমি মনে করি। বাংলাদেশ সফলতার সঙ্গে কোভিড মোকাবিলা করছে।’

রবিবার (৪ অক্টোবর) শিশু হাসপাতালে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইনের উদ্বোধনকালে দেওয়া বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘গত সাত আট মাস স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় একদিকে কোভিড মোকাবিলা করেছে সফলতার সঙ্গে, অন্যদিকে নন-কোভিড রোগীদেরও চিকিৎসা দিয়ে এসেছে।’

বাংলাদেশের কোভিড নিয়ন্ত্রণের প্রশংসা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিশ্ব, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, বিভিন্ন রাষ্ট্র প্রধান এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাধিকবার এর স্বীকৃতি দিয়েছেন।’

জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা গত ছয় সাত মাস ধরে কাজ করেছি, মৃত্যুর হার কমে এসেছে।’ ভারতে ও আমেরিকার উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমেরিকাতে রোজ এক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়, প্রতিদিন শনাক্ত হন দুই লাখের বেশি। তাদের দেশের জনসংখ্যা আমাদের দ্বিগুণ। সেই হারে ধরলে আমাদের দেশে মৃত্যু হতো এক লাখের বেশি।’

‘আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন। এই ভাইরাস কাউকে ছাড়ছে না। শুধু যে ভ্যাকসিনের মাধ্যমেই ঠেকানো যাবে তা নয়, সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে আমরা ভালো থাকবো।’—বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন সময়ে এ দেশে বিভিন্ন সংক্রামক রোগ দেখা দিয়েছে। আমারা সেসব মোকাবিলা করেছি। কোভিডের বিষয়টি মাথায় রেখে কাজ করে গেছি, যারা নন-কোভিড রয়েছেন তাদের স্বাস্থ্যসেবাও পুরোদমে চলেছে। সব ধরনের কাজ হয়েছে।’

এ সময় মাস্ক পরা, বারবার হাত ধোয়া, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার তাগিদ দেন তিনি।