শিরোনামঃ

» ভারত থেকে গত ২৪ দিনে বেনাপোল দিয়ে  দেশে ১৯৮০ মেট্রিক টন অক্সিজেন আমদানি

প্রকাশিত: ১৭. জুলাই. ২০২১ | শনিবার

দেশে করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় এবং হাসপাতালে রোগী বাড়ায অক্সিজেনের চাহিদা বেড়েছে।

জানা গেছে, ভারতে করোনা সংক্রমণ বাড়ায় এবং হাসপাতালে অক্সিজেনের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় গত ২১ এপ্রিল থেকে বাংলাদেশে অক্সিজেন রফতানি বন্ধ রেখেছিল ভারত। তবে দেশটিতে সম্প্রতি সংক্রমণ কমে আসায় গত ২১ জুন থেকে ফের বাংলাদেশে অক্সিজেন রফতানি করছে।

একই সময়ে বাংলাদেশে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সংকটাপন্ন করোনা রোগীদের বাঁচাতে অক্সিজেন চাহিদা বেড়েছে। ফলে ভারত থেকে অক্সিজেন আমদানিও বেড়েছে।

বেনাপোল আমদানি-রফতানিকারক সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল হক বলেন, ‘গত ২১ এপ্রিল ভারত সরকার বাংলাদেশে অক্সিজেন রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করে। পরবর্তীতে দেশটিতে করোনা সংক্রমণ কমে আসায় ২১ জুন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। ফলে বাংলাদেশে অক্সিজেন আমদানি শুরু হয়।’

এ ক্রান্তিকালে প্রতিবেশী রাষ্ট্র অক্সিজেন আমদানির সুযোগ দেয়ায় এটি বাণিজ্যিক সম্পর্কের পাশাপাশি বন্ধুত্বেরও উদাহরণ বলে মনে করেন এ ব্যবসায়ী নেতা।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন বলেন, দেশের চিকিৎসা খাতে অক্সিজেনের চাহিদা মেটাতে বড় প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে একটি অংশ আমদানি করা হয়। প্রতি বছরে প্রায় ৩০ হাজার মেট্রিক টন অক্সিজেন আমদানি করা হয়ে থাকে।

করোনাকালীন সময়ে আক্রান্তদের জীবন বাঁচাতে সম্প্রতি অক্সিজেনের চাহিদা আরও বেড়েছে।’

বেনাপোল স্থলবন্দরের উপ-পরিচালক (ট্রাফিক) মামুন কবীর তরফদার আব্দুল জলিল জানান, বেনাপোল বন্দর দিয়ে পাঁচজন আমদানিকারক অক্সিজেন আমদানি করে থাকেন। এর মধ্যে লিন্ডে বাংলাদেশ ও এক্সপেট্রা অক্সিজেন নামে দুই আমদানিকারক ৯০ শতাংশ অক্সিজেন আমদানি করে থাকেন।

তিনি আরও জানান, গত বৃহস্পতিবার এক্সপেট্রা, লিন্ডে অক্সিজেন ও ইসলাম অক্সিজেন নামে তিনজন আমদানিকারকের নামে ১৯৫ মেট্রিক টন অক্সিজেন আমদানি হয়েছে।

গত ২১ জুন থেকে ১৫ জুলাই পর্যন্ত ভারত থেকে অক্সিজেন আমদানি হয়েছে এক হাজার ৯৮০ মেট্রিক টন। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ১১০ মেট্রিক টন অক্সিজেন আমদানি হচ্ছে বলেও জানান স্থলবন্দরের এ কর্মকর্তা।

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৭ বার

[hupso]