শিরোনামঃ

» ভারত থেকে ট্রাক ভর্তি প্রতিমা আসলো মোংলায়,  করোনা ঝুঁকিতে বন্দর

প্রকাশিত: ১৯. মে. ২০২১ | বুধবার

মোংলা প্রতিনিধি।।সারা দেশব্যাপি করোনার কঠোর বিধি নিষেধাজ্ঞার মধ্যেও ভারত থেকে ট্রাক ভর্তি পাথরের প্রতিমার মোংলায় আনার ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

বুধবার (১৯ মে) দুপুরের পর উপজেলার বুড়িডাঙ্গার সার্বজনীন কালিমন্দিরে এই প্রতিমা আনা হয়।

এসময় বুড়িডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নিখিল চন্দ্র তার অনুসারীদের নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করে নেচে গেয়ে এ ট্রাক থেকে প্রতিমাটি বরন করেন।

তবে চেয়ারম্যান নিখিল চন্দ্রের দাবি, স্বাস্থ্যবিধি মেনেই পাথরের প্রতিমাটি বরন করা হয়েছে। আর এটি এখনই স্থাপন করা হবেনা বলেও জানান তিনি।
তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিও ফুুটেজে দেখা যায়-মুখে মাস্ক ছাড়াই গায়ে গায়ে মিশে ঢাকের বাদ্যে নেচে গেয়ে প্রতিমা বরন করছেন একদল লোক। সেখানে চেয়ারম্যানকেও নাচতে দেখা যায়।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক মানবাধিকার কর্মী বলেন, চরম করোনার মহামারীর মধ্যে ভারত থেকে কিভাবে ট্রাকে করে এই প্রতিমা আসলো? এতে কি করোনার ঝুঁকি থাকেনা?, তবে ভারতের করোনার প্রচন্ডতা এখন বাংলাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দেখা দিয়েছে। তার মধ্যে সরাসরী বারত থেকে প্রতিমা নিয়ে আসলো মোংলা বন্দর সংলগ্ন বুড়িরডাঙ্গা ইউনিয়নে। সেখানে ট্রাক ড্রাইভারসহ তার সাথে হেলপারও রয়েছে। আর যারা বরন করেছে তারাতো সামাজিক দুরত্ব বা স্বাস্থ্য বিধিতো দুরের কথা করোনা বলতে কোন আছে এরকম মনেই হয়নি এ প্রতিমা বরন অনুষ্ঠানে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মোংলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কমলেশ মজুমদার বলেন, বিষয়টি আমিও জেনোছি। তবে এনিয়ে বেশি বাড়াবাড়ি না করতে সংশ্লিষ্টদের বলা হয়েছে। আর করোনা ঝুঁকির বিষয়ে তিনি বলেন, ভারত থেকে যখন ওই দেশের বর্ডার পার হয়ে এদেশে প্রবেশ করেছে, সে সময়ই বাধা দেয়া উচিত ছিল কিন্ত বর্ডার প্রশাসন কি করলো সেটাই এখন চিন্তার বিষয়। তার পরেও বুড়িরডাঙ্গা বর্তমান ইউপি চেয়ারম্যানকে বলা হয়েছে, প্রতিমা বরন করতে গিয়ে যেন মানুষ করেনায় আক্রান্ত না হয়।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৫৭ বার

[hupso]