শিরোনামঃ

» মোংলা বন্দরের জাহাজের তেল পাচারের সময় ট্রলার বোঝাই তেলসহ ৩ চোরকারবারী  আটক

প্রকাশিত: ০৭. অক্টোবর. ২০২০ | বুধবার

মোংলা প্রতিনিধি।।মোংলা সমুদ্র বন্দরে বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ থেকে ট্রলার বোঝাই জ্বালানী তেল পাচারের সময় তিন চোরাকারবারীকে আটক করেছে কোস্টগার্ড।

সোমবার রাত ১টার দিকে মোংলার সাইলো (খাদ্য গুদাম)’র জেটি এলাকায় থেকে কোষ্টগার্ড হাড়বাড়িয়া স্টেশানের সদস্যরা চোরাচালান বিরোধী অভিযান চালিয়ে ৩ জন চোরাচালানকার আটক করে।

মোংলা কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন’র গোয়েন্দা কর্মকতার্ লে, এম ফয়সাল হক জানান, একটি সংঙ্গবদ্ধ চোরাকারবারীদল বন্দরের বিদেশী জাহাজ থেকে তেল পাচার করে আসছে যা ইতি পুর্বে কোষ্টগার্ডের অভিযানে কয়েক হাজার লিটার জব্ধও করা হয়েছে। এর সাথে জড়িতদেরও আটক করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

পুনরায় গোপন সংবাদের সুত্রধরে বন্দরের পশুর নদীর খাদ্যগুদাম এলাকায় দিয়ে ট্রলার বোঝাই করে তেল পাচার করছিল চোরাকারবারীরা।

এসময় কোষ্টগার্ডের উপস্থিতি বুঝতে পেরে ট্রলার ফেলে রেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কোষ্টগার্ড সদস্যরা ধাওয়া করে তেল পাচারের সাথে জড়িত ৩ চোরাকারবারীকে আটক করতে সক্ষম হয়।

ট্রলারে থাকা ১৫৫০ লিটার তেল জব্ধ করে কোষ্টগার্ড সদস্যরা। আটককৃতরা হচ্ছে, কানাই নগর এলাকার ফারুক খান’র ছেলে  হাবিব খান (৪৫), অব্দুর রউফ হাওলাদার’র ছেলে আবুল শেখ (৪৮) ও একই এলাকার নুর মোহাম্মদ’র ছেলে সুমন (১৮)।

আটককৃতদেরসহ ট্রলার জব্দকৃত তেল পরবতর্ী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মোংলা থানায় হস্তান্তর করা করা হয়েছে।

এ ঘটনায় কোষ্টগার্ড বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়েরের পর চোরাকাবারীদেরকে বাগেরহাট আদালতে মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরন করা হবে বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ  ইকবাল বাহার চৌধুরী।

কোস্ট গার্ড পশ্চিম জোনের গোয়েন্দা কর্মকতার্ এম ফয়সাল হক জানান, কোস্ট গার্ড এর এখতিয়ারভূক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণ, চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণের পাশাপাশি সুন্দরবনের বন্যপ্রানী ও মৎস্য সম্পদ রক্ষায় কোস্ট গার্ড জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে এবং ভবিষ্যতেও এরুপ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বরেও জানায় কোষ্টগার্ডের এ কর্মকর্তা।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪৭ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
মাসুদ রানা,মোংলা।।দীর্ঘ বেশ কয়েক বছর লোকসানে থাকা মোংলা বন্দর এখন…