শিরোনামঃ

» শার্শায় প্রবাসীর স্ত্রী ও দু”সন্তানকে হত্যার হুমকি দিয়েছে এক লম্পট,থানায় লিখিত অভিযোগ

প্রকাশিত: ১২. জুন. ২০২১ | শনিবার

বিশেষ প্রতিনিধি।।শার্শার বামুনিয়া সোনাতনকাটি গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী ফারুক হাসানের স্ত্রী ও তার দুই সন্তানকে হত্যার হুমকি দিয়েছে হাফিজুল নামের এক লম্পট।

লম্পট হাফিজুর শার্শা উপজেলার রাড়ীপুকুর গ্রামের ছাক্কু মিয়ার ছেলে।

এব্যাপারে শার্শা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ঐ প্রবাসীর স্ত্রী।

জানা যায়,কিছুদিন আগে প্রবাসী ফারুকের স্ত্রী ও বোন উপজেলার বাগআঁচড়ায় এক গার্মেন্টস এর দোকানে কাপড় কিনতে গেলে হাফিজুল কৌশলে ফারুকের বোনের কাছ থেকে তার স্ত্রীর মোবাইল নং নেয়। এর পর থেকে হাফিজুল প্রবাসীর স্ত্রীকে উত্যাক্ত ও ব্লাক মেলিং করার চেষ্টা করে।

বিষয়টি বাগআঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল ও কায়বা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম মেম্বরকে জানালে তারা বাগআঁচড়া আইসি ক্যাম্পে বসে বিষয়টি নিস্পত্তি করে দেন। কিন্তু এতো কিছুর পরেও হাফিজুল প্রবাসীর স্ত্রীর পিছু ছাড়েনি।

গত শনিবার (৫ ই জুন) গভীর রাতে ঔ লম্পট হাফিজুর প্রবাসী ফারুকের মেয়ের একটি ছবিতে লাল ক্রসচিহ্ন দিয়ে পাঠায়। তার অপর পিঠে ফারুকের স্ত্রীর উদ্দ্যেশ্যে লেখা ছিলো তোর ও তোর দু মেয়েকে খুন করবো।

ফারুকের স্ত্রী জানায়, তার স্বামী বিদেশ থাকার সুবাদে আমার নামে মিথ্যা অপবাদ রটিয়ে ব্লাকমেইল করে টাকা হাতিয়ে নেয়ার উদ্দেশ্য ছিলো হাফিজুলের।

এতে ব্যার্থ হয়ে সে আমাদের খুনের হুমকী দিচ্ছে। হাফিজুল একজন নেশাখোর বলেও জানান তিনি।

তিনি আরো জানায় যে, হাফিজুল যে কোনো সময় তাদের মেরে ফেলতে পারে।

এব্যাপারে ঐ প্রবাসীর স্ত্রী পুলিশের হস্তক্ষেপ কামনা করে শার্শা থানাতে উপস্থিত হয়ে একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ ব্যাপারে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) বদরুল আলম খান জানান,একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৯৬ বার

[hupso]