শিরোনামঃ

» শার্শায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

প্রকাশিত: ২৫. জুন. ২০২০ | বৃহস্পতিবার

মিলন কবির, বিশেষ প্রতিনিধি :
জেনে বুঝে বিদেশ যাই, অর্থ সম্মান দুটোই পাই’ এই প্রতিপাদ্য নিয়ে বৈদেশিক কর্মসংস্থানের জন্য দক্ষতা ও সচেতনতা শীর্ষক এক সেমিনার ২৫ জানয়ারী বৃহঃবার শার্শা উপজেলা অডিটেরিয়াম সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। প্রবাসি কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় উপজেলা প্রশাসন এই সেমিনারের আয়োজন করে।

শার্শা উপজেলা নির্বাহি অফিসার পুলক কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সেমিনারে মূল প্রতিপাদ্য বিষয় উপস্থাপন করেন বৈদেশিক কর্মসংস্থান যশোর জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিসের সহপরিচালক রাহিনুর ইসলাম ও কারিগরি প্রশিক্ষন কেন্দ্র যশোরের অধ্যক্ষ মোঃ বরকত উল্লাহ।

শার্শা উপজেলা আইসিটি অফিসার আহসান হাবীবের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির মধ্যে বক্তব্য রাখেন যশোর জেলার অতিঃ ম্যাজিষ্ট্রেট মুহাম্মদ আবুল লাইছ, শার্শা উপজেলা চেয়ারম্যান সিরাজুল হক মঞ্জু, উপজেলা ভূমি কমিশনার খোরশেদ আলম চৌধুরী, শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম, বেনাপোল পোর্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মামুন খাঁন, বেনাপোল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব বজলুর রহমান ও নাভারন কলেজের অধ্যক্ষ ইব্রাহিম খলিল।এছাড়া সেমিনারে উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন সাংবাদিকবৃন্দ, সুশীল সমাজ,শিক্ষক, পেশাজীবী ও কৃষিজীবি প্রতিনিধিবৃন্দ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের সভাপতি উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মন্ডল তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন, যুব সমাজের বেকারত্ব দুরীকরণে বিদেশী কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির উপর সরকার সর্বাধিক গুরুত্বারোপ করেছেন। সেজন্য যুব সমাজকে অবশ্যই বিভিন্ন কারিগরি বিষয়ে প্রশিক্ষিত এবং দক্ষ হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে হবে।

সেমিনারের উত্থাপিত প্রবন্ধে উল্লেখ্য করা হয়, প্রবাসী বাংলাদেশীদের কল্যাণ ও অধিকার নিশ্চিত করা এবং বিদেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাওয়াই প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অন্যতম দায়িত্ব। তদুপরি প্রতারণা এড়াতে এবং বিদেশে সঠিক কর্মসংস্থানে নিযুক্ত হওয়ার লক্ষ্যে বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে বিভিন্ন কারিগরি বিষয়ে প্রশিক্ষিত হয়ে সংশ্লিষ্ট দেশের ভাষা শিখে এবং এজেন্টের নাম পরিচয় ও বৈধতা যাচাই করে জেনে বুঝে প্রবাসী কল্যাণ কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ মোতাবেক কর্মসংস্থানের জন্য বিদেশে গমন করার উপর সেমিনারে গুরুত্বারোপ করা হয়।

এছাড়া আরো উল্লেখ করা হয়, সরকার বিদেশে অবস্থানকালে প্রবাসীদের আকস্মিক মৃত্যুতে ৩ লাখ টাকা অনুদান এবং বিদেশ থেকে দেশে ফেরার পর ৬ মাসের মধ্যে কারো মৃত্যু হলে তার পরিবারকে একই পরিমাণ অনুদান প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন। এছাড়া বিদেশ থেকে অসুস্থ অবস্থায় দেশে ফিরলে তার চিকিৎসার ব্যয় সরকার বহন করবে বলেও জানানো হয়। তদুপরি কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে প্রতিবছর দেশের প্রতি উপজেলা থেকে গড়ে ১ হাজার মানুষকে বিদেশে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির এক নতুন ইস্তেহার ঘোষণা করেছেন। যা পর্যায়ক্রমে বাস্তবায়িত হবে।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১৫৭ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
  ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের সেবাদানকারী…