শিরোনামঃ

» সীমানা জটিলতা কাটিয়ে দীর্ঘ ১০ বছর পর মোংলা পৌরসভার নির্বাচন, প্রচারে ব্যস্ত প্রার্থীরা

প্রকাশিত: ০৮. জানুয়ারি. ২০২১ | শুক্রবার

মাসুদ রানা মোংলা।।সীমানা জটিলতা কাটিয়ে দীর্ঘ ১০ বছর পর হচ্ছে মোংলা পোর্ট পৌরসভার নির্বাচন। আর এই আমেজে জমে উঠেছে প্রার্থীদের প্রচার প্রচারনা।

কাক ডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত প্রার্থীরা ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন। প্রচারে যে যেমন পারছেন উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নির্বাচনী বৈতরনী পার হওয়ারও চেষ্টা করছেন।

জানা গেছে, দ্বিতীয় ধাপে আসছে নির্বাচনে মোংলা পোর্ট পৌরসভায় আ’লীগ ও বিএনপি সমর্থিত দু মেয়র প্রার্থী ছাড়াও বিভিন্ন ওয়ার্ডে রয়েছে নারীসহ ৪৮ জন কাউন্সিলর প্রার্থী। তারা চূড়ান্ত সরব। নির্বাচনকে সামনে রেখে এখানে নতুনরা ডাক দিচ্ছেন পরিবর্তনের। আর পুরোনরা বাকি থাকা কাজ শেষ করার ধুয়া তুলে ভোট চাইছেন। পোষ্টারে পোষ্টারে ছেয়ে গেছে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ছাড়াও বিভিন্ন অলি-গলি।

সাধারণ ভোটররা বলছেন, যোগ্যতা, দক্ষতা এবং সততা ওপর ভিত্তি করেই তারা সিদ্ধান্ত নেবেন কাকে ভোট দেবেন। তবে না প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েকজন ভোটার প্রশ্ন রেখে বলেন ভোট কি সুষ্ঠ হবে?

এদিকে মেয়র পদে হাড্ডা হাড্ডি লড়াইয়ের আভাসও দিচ্ছেন তারা। ২০১১ সালে আ’লীগ মনোনীত শেখ আব্দুস সালামকে হারিয়ে জয়ী হয়েছিলেন বিএনপির  জুলফিকার আলী। সীমানা জটিলতায় পরেরবার নির্বাচন না হওয়ায় দ্বিতীয় মেয়াদে তিনি মেয়র থেকে যান।

এবারও দলের টিকিট পেয়েছেন তিনি। তাকে হারাতে এবার প্রার্থী হয়েছেন আ’লীগের প্রবীন মুক্তিযোদ্ধা শেখ আব্দুর রহমান। দুজনই ভোটারদের নানা উন্নয়নমুখী প্রতিশ্রæতি দিয়ে ভোট নেয়ার চেষ্টা করছেন।

বর্তমান মেয়র  জুলফিকার আলী বলেন, আমি দ্বিতীয় শ্রেণী পৌরসভাকে প্রথম শ্রেণীতে উন্নীত করেছি, নাগরিকদের সব রকম সুযোগ সুবিধা দিয়ে সবুজ বাসযোগ্য পৌরসভায় রুপান্তরিত করেছি। এজন্য আমাকে আবার মেয়র নির্বাচিত করবেন ভোটাররা।

‘উন্নয়ন যা হয়েছে আ’লীগ সরকার করেছে। প্রথম শ্রেণী পৌরসভা হিসেবে নাগরিকদের যেসব সুবিধা দেয়ার প্রয়োজন তার কিছুই করেন নি আগের মেয়র বলে দাবি করেন আ’লীগের মেয়র প্রার্থী শেখ আব্দুর রহমান। তিনি বলেন, আমাকে প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী করেছেন, জনগন আমাকেই বেছে নেবে’।

বাগেরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফরাজি বেনজির আহম্মেদ বলেন, ১৬ জানুয়ারী অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া এ পৌরসভায় ভোটার রয়েছেন ৩১ হাজার ৫৪৯ জন। এবারই প্রথমবারেরমত ভোট হবে ইভিএমে।

তিনি আরও বলেন, মোংলা পোর্ট পৌরসভায় ৯ টি ওয়ার্ডে মোট ১২ টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহন অনুষ্ঠিত হবে। এসব কেন্দ্রে নির্বাচন অবাধ ও সুষ্ঠ করার লক্ষ্যে

পর্যপ্ত নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হবে। এদিন র‌্যাব-পুলিশের পাশাপাশি কোস্টগার্ড ও আর্ম ব্যটালিয়ান পুলিশ মোতায়েন থাকবে বলেও জানান তিনি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৮৩ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
বিশেষ প্রতিনিধি।। ঝিকরগাছারবাঁকড়ায় কপোতাক্ষ সাহিত্য পরিষদের ৩৪তম মাসিক সাহিত্য আসরে…