শিরোনামঃ

» সুন্দরবনের নদী-খালে বিষ প্রয়োগে মাছ শিকার ও দুবৃত্ত চক্রের তৎপরতায় উপমন্ত্রীর ক্ষোভ 

প্রকাশিত: ২৩. সেপ্টেম্বর. ২০২০ | বুধবার


বিশেষ প্রতিনিধি।সুন্দরবনের নদী-খালে বিষ প্রয়োগে মাছ শিকার ও দুবর্ৃত্ত চক্রের তৎপরতায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পরিবেশ বন ও জলবায়ু বিষায়ক মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার এমপি। বুধবার দুপুর সাড়ে ১২ টায় মোংলা উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির মাসিক সভায় তিনি এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সভায় সুন্দরবনের মৎস্য সম্পদ ও জীববৈচিত্র্য রক্ষায় স্থানীয় প্রশাসকে নজরদারী বৃদ্ধি সহ আরও কঠোর হওয়ার নির্দেশ দেন তিনি। উপজেলা নিবার্হী অফিসার কমলেশ মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সভায় আইন শৃংখলা, করোনা পরিস্থিতি ও খাদ্য সহায়তা, সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কার্যক্রমের পাশাপাশি সুন্দরবন উপকুলের জেলে ও সুন্দরবন সুরক্ষার বিষয় আলোচনায় ওঠে আসে। এ সময় সম্প্রতি আইন শৃংখলা বাহিনীর সদস্যদের হাতে কয়েক দফায় হরিণের মাংস, গাজাঁ, ইয়াবাসহ বেশ কিছু মাদকের চালান আটক হয়। এর সাথে জড়িদের গ্রেফতার করে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে জেল হাজতে পাটায় পুলিশ বলে এ মিটিংয়ে উঠে আসে। এছাড়া বনের অভ্যান্তরে জেলে ভ্যাসে প্রবেশ করে বিষ ও ফাদঁ পেতে মাছ এবং বনের হরিন শিকার করছে কয়েকটি দুষ্ট চক্র। ইতি মধ্যে বিষসহ বেশ কয়েকজন দুবর্ৃত্ত আইন শৃংঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে আটক হয়ে জেল হাজতে রয়েছে। নিষিদ্ধ কীটনাশক সহ বনের মৎস্য, বনজ ও জীব বৈচিত্র এবং এখানকার অপরাধী চক্রের তৎপরতা নিয়ে কথা বলেন উপমন্ত্রী বেগম হাবিবুন নাহার। তিনি বলেন, মহামারী করোনা ভাইরাস’র কারনে দীর্ঘ কয়েক মাস মোংলা-রামপালে সফর করা হয়নী বলে বনে অপরাধ চক্রের তৎপরতা বেড়ে যাবে, তা কখনই মেনে নেয়া হবেনা। এ সরকারের পুর্বে এ অঞ্চলে অপরাধোও চলতো এবং অপরাধীও ছিল অনেক বেশী, কিন্ত বর্তমান সরকার বনের বন দস্যুদের সুযোগ করে দিয়েছে ভাল পথে ফিড়ে আসার জন্য তাই অপরাধ কমে গেছে। তার পরেও যারা বনের বা বনের সম্পদের ক্ষতি করছে তাদের ছাড় দেয়া হবে না বলে প্রমাসনকে আরো কঠোর হওয়ার নির্দেশনা দেন উপমন্ত্রী। সভায় উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদা, ভাইস চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি নয়ন কুমার রাজবংশি, নৌ বাহিনীর কন্টিজেন্ট কমান্ডার, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার অসিফ ইকবাল, থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মোঃ ইব্রাহিম হোসেন, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা সংসদ’র ডেপুটি মকান্ডার শেখ আঃ রহমান, উপজেলার সকল সরকারী প্রাঃ বিঃ, মাধ্যমিক বিঃ, মাদ্রাসা ও কলেজ’র প্রধানগন, ছয় ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগন সহ আইন শৃংখলা বাহিনীর কর্মকর্তা এবং উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা ও আওয়ামীলীগের দলীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৪২ বার

[hupso]
সর্বশেষ খবর
মাসুদ রানা,বিশেষ প্রতিনিধি মোংলা।।সফলতা অর্জনে পরিবেশ-স্বাস্থ্য ও শিক্ষার উপর গুরুত্ব…