এত টাকা আর্জেন্টাইন সুপারস্টারের কাছে না থাকায় দলবদল করতে পারছেন না। কাজেই বাধ্য হয়েই চুক্তির শেষ পর্যন্ত তথা আরও ১০ মাস বার্সেলোনায় থাকতে হচ্ছে মেসিকে।

শুক্রবার গোল ডটকমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে মেসি বলেছেন, ক্লাব বলছে, ১০ জুনের আগে আমি কেন তাদের জানাইনি যে, ক্লাব ছাড়তে চাই। ভেবেছিলাম আমি অন্য ক্লাবে যেতে পারব। এর মাঝে চলে এলো করোনাভাইরাস। এজন্যই আমি ন্যুক্যাম্পে থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

তিনি আরও বলেছেন, বার্সার জার্সি গায়ে এই মৌসুমেও আমি খেলব। কারণ, ক্লাব প্রেসিডেন্ট আমাকে বলেছেন, চলে যেতে চাইলে আমাকে ৭০ কোটি ইউরো দিয়ে যেতে হবে। চুক্তির রিলিজ ক্লজে এই শর্ত জুড়ে দেয়া হয়েছে। ৭০ কোটি ইউরো দেয়া আমার পক্ষে অসম্ভব।

বার্সেলোনা ছাড়তে হলে মেসির সামনে আরেকটা পথ খোলা ছিল। সেটি হল বার্সেলোনাকে আদালতে নিয়ে যাওয়া। মেসি সেই পথে যেতে নারাজ। তাই আরও ১০ মাস তাকে থাকতেই হচ্ছে ন্যুক্যাম্পে।

এ ব্যাপারে ছয়বারের ব্যালন ডি অরজয়ী মেসি বলেছেন, বার্সেলোনা আমার জীবন। এখানেই নিজের জীবন সাজিয়েছি আমি। বার্সা আমাকে সবকিছু দিয়েছে।

আমিও বার্সাকে সব দিয়েছি। তাই বার্সাকে আদালতে টেনে নিয়ে যাব, এমন চিন্তা করিনি কখনও। যে ক্লাবটিকে আমি ভালোবাসি।তাদের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর কথা ভাবতেও পারি না।