সর্বশেষ খবর :
মুজিববর্ষ

» শার্শার বাগআঁচড়ায় ভ্রাম্যমান আদালতের সাড়াশি অভিযানে দেড় লক্ষাধিক টাকা জরিমানা আদায় 

প্রকাশিত: ২৪. মার্চ. ২০২০ | মঙ্গলবার

বেত্রাবতী ডেস্ক : শার্শার বাগআঁচড়া বাজারে বিভিন্ন আড়ৎ ও মুদি দোকানে ভ্রাম্যমান আদালতের সাড়াশি অভিযান পরিচালনা করে ১ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছে।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকালে উপজেলার বাগআঁচড়া বাজারে বিভিন্ন আড়ৎ ও মুদি দোকানে এ ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন শার্শা উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী।

ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট খোরশেদ আলম চৌধুরী জানান, বিভিন্ন মারফত জানতে পারি যে,করোনা ভাইরাসে মানুষ যখন অতঙ্কিত তখন এটাকে পুঁজি করে বাগআঁচড়া বাজারে বিভিন্ন অসাধু ব্যবসায়ীরা নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য দ্রব্য বেশী মুল্যে বিক্রি করছে। এমন খবরে বিকালে শার্শার বাগআঁচড়া বাজারে অভিযান পরিচালনা করে দেখা যায়, দ্রব্য মুল্যের মুল্য তালিকা নেই, চাউল রাখার জন্য চটের বস্তার ব্যবহার না করে প্লাস্টিকের বস্তার ব্যবহার করছে এবং প্রতি বস্তা চাউলে দুইশ’ থেকে তিনশ’ টাকা বেশী দরে বিক্রি করছে।

এ সকল অভিযোগে উপর্যুক্ত অপরাধের কারণে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুযায়ী বাগআঁচড়া বাজারের ছিদ্দিক স্টোরকে, ২ হাজার টাকা, মেসার্স সালাম স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, আলামীন স্টোরকে ২ হাজার টাকা, বৈশাখী স্টোরকে ২০ হাজার টাকা, বাবুল স্টোরকে ২৫ হাজার টাকা, খলিল স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, মওলা ভান্ডারকে ১০ হাজার টাকা, বিসমিল্লা স্টোরকে ২০ হাজার টাকা, ইসরাফিল স্টোরকে ৫ হাজার টাকা, হারুন অর রশিদকে ৫ শত টাকা, ইউনুচ স্টোরকে ২০ হাজার টাকা, এবং রবিউল স্টোরকে, ৫০ হাজার টাকাসহ মোট ১২ জন ব্যসায়ীকে ১ লক্ষ ৬৫ হাজার টাকা জরিমান করা হয় পাশাপাশি সকল দোকানদারকে সাধারণ মানুষকে হয়রানি না করে ন্যায্য মূল্যে পণ্য বিক্রি করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়।

তিনি আরো জানান, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে মুল্য তালিকাসহ সকল অনিয়ম ঠিক করে নিতে নির্দেশ দেওয়া হয়।সকল অনিয়মের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৪২ বার

[hupso]