» ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্রে ১ ঘণ্টা পরীক্ষা দিলো ৯৮ শিক্ষার্থী

প্রকাশিত: ০৩. ফেব্রুয়ারি. ২০২০ | সোমবার

নীলফামারী:  এসএসসি পরীক্ষার প্রথম দিনে বাংলা প্রথমপত্র পরীক্ষায় নীলফামারী সদরের রাবেয়া বালিকা নিকেতন কেন্দ্রের কেন্দ্র সুপার ও কক্ষ পরির্দশকের ভুলে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্রে এক ঘণ্টার বেশি সময় পরীক্ষা দিয়েছে ৯৮ জন পরীক্ষার্থী।

এমন ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানান, পরীক্ষার্থী ও অভিভাকরা। তবে কেন্দ্র সুপার বলছেন সামান্য ভুলে তেমন সমস্যা হয়নি পরীক্ষার্থীদের।

জানা যায়, সোমবার (৩ ফেব্রুয়ারি) শুরু হওয়া এসএসসি পরীক্ষায় নীলফামারী রাবেয়া বিদ্যা নিকেতন কেন্দ্রে চারটি বিদ্যালয় থেকে নিয়মিত ৬১৯ জন এবং অনিয়মিত ১ জনসহ মোট ৬২০ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে। এর মধ্যে ওই কেন্দ্রের ৫ নম্বর কক্ষে ৫ জন এবং ৮ নম্বর কক্ষে ৯৩ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ২০২০ সালের স্থলে ২০১৮ সালের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করে কেন্দ্র সুপার। পরীক্ষা শুরুর এক ঘন্টা পর পরীক্ষার্থীরা ভুল প্রশ্নপত্র সরবারহের বিষয়টি কক্ষ পরিদর্শককে জানায়। পরে কক্ষ পরিদর্শক কেন্দ্র সুপারকে বিষয়টি জানালে কেন্দ্র সুপার বোর্ড কর্তৃপক্ষ এবং জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে। এরপর দুপুর ১২টার দিকে নতুন করে ২০২০ সালের প্রশ্নপত্র সরবরাহ করলে ওই ৯৮ জন পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নেওয়া হয়। পরীক্ষার্থীরা আগের লেখা খাতায় নতুন প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা দেন।

সর্বোচ্চ প্রস্তুতি নিয়েও ভাল পরীক্ষা দিতে না পেরে ভেঙে পড়েছে পরীক্ষার্থীদের মনোবল। এ পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন অভিভাবকরা।

রাবেয়া বিদ্যা নিকেতনের কেন্দ্র সুপার মহাফিজুর রহমান খানের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করা হলে তিনি রাজি হননি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৬ বার

[hupso]