শিরোনাম :

» প্রাণঘাতী করোনায় দুদক পরিচালকের মৃত্যু

প্রকাশিত: ০৬. এপ্রিল. ২০২০ | সোমবার

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) জালাল সাইফুর রহমান মারা গেছেন। আজ সোমবার সকালে রাজধানীর উত্তরায় অবস্থিত কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে সাতটার দিকে মারা যান।

সম্প্রতি নিজের শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেওয়ায় এই দুদক কর্মকর্তা সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানে (আইইডিসিআর) যোগাযোগ করেন তিনি। পরে কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি।

কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা আলীমুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, দুদক কর্মকর্তা সাইফুর রহমান করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৭ দিন ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় গত চার দিন তাকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়।

সোমবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি মারা যান। বর্তমানে তার স্ত্রী-সন্তানদের হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

‘কীভাবে তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তা জানা যায়নি’ উল্লেখ করে ডা. শিহাব বলেন, ‘আমরা বিষয়টি দুদক মহাপরিচালককে জানিয়েছি। কেউই বলতে পারেননি তিনি কীভাবে আক্রান্ত হয়েছিলেন।’

জালাল সাইফুর রহমান ২২ ব্যাচের প্রশাসন ক্যাডার ছিলেন। দুদকের এ পরিচালক স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (উপসচিব) হিসেবে আসীন ছিলেন। ২০১৭ সালের জুলাই মাসে তাকে দুদকের পরিচালক হিসেবে স্থানান্তরিত করা হয়। তার বাড়ি ফেনী জেলায়।

দুদকের এই কর্মকর্তা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের প্রাক্তন শিক্ষার্থী। প্রশাসন ক্যাডারে যোগ দেওয়ার আগে তিনি ১৭তম বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে কাজ করেন।একমাত্র ছেলে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছেন। স্ত্রী, সন্তানসহ ঢাকায় থাকতেন তিনি।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৯ বার

[hupso]