» করোনা মোকাবেলায় ও মানবসেবায় এক অনন্য রোল মডেল ও মানবতার ফেরিওয়ালা বকুল চেয়ারম্যান

প্রকাশিত: ০২. জুন. ২০২০ | মঙ্গলবার

আরিফুজ্জামান আরিফ।। শার্শার  বাগআঁচড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় যেভাবে কাজ করছেন তা হতে পারে যশোর সহ সারা দেশের জন-প্রতিনিধিদের জন্য একটি রোল মডেল।

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের শুরু থেকেই তিনি জনগন কে সচেতনতা করার পাশাপাশি কখনো দিনের আলোয় আবার কখনো রাতের আধারে ইউনিয়নের সকল গ্রামে স্ব শরীরে হাজির হয়ে ঘরে থাকা দুঃস্হ অসহায় মানুষের দুয়ারে দুয়ারে খাদ্য সামগ্রী বিতরন করে এলাকার সর্বমহলে মানবতার ফেরিওয়ালা হিসাবে স্বীকৃতি পেয়েছেন।

করোনা মোকাবেলায় সরকারী সকল নির্দেশনা গুরুত্ব সহকারে মেনে চলার পাশাপাশি বহি:বিশ্বের করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা ও সর্তকতামূলক কার্যক্রমগুলো বিচক্ষণতার সাথে আমলে নিয়ে তা বাস্তবায়নে কাজ শুরু করে আজ অবদি অব্যাহত রেখেছেন।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় জনসাধারণের মাঝে সর্তকতামূলক কার্যক্রম ও লক ডাউনে কর্মহীন অসহায় দরিদ্রদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ সহ সবদিকেই খেয়াল রেখে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন একাধিকবার স্বর্নপদক প্রাপ্ত চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল।

দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে ছুটে বেড়াচ্ছেন ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে বসবাসরত মানুষদের বাড়ি-বাড়ি। খেয়াল রাখছেন তাদের সুবিধা-অসুবিধার দিকটি।

 

ইতিমধ্যে নির্দেশনা দিয়েছেন জরুরী প্রয়োজন ছাড়া সবাইকে নিজ নিজ বাসায় থাকার।জানিয়েছেন ফোন করলে প্রয়োজনে তাদের খাবার ও বাজার বাসায় পৌছে দেয়া হবে। কর্মহীন ও হতদরিদ্র তাদের জন্য পৌছে দিচ্ছেন চাল, ডাল, তেল, লবন আলু সহ নিত্য খাদ্য সামগ্রী।

ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে বসবাসরত প্রতিটি নাগরিককে করোনাভাইরাস সম্পর্কে জানাতে নিজে লিফলেট বিতরণ করছেন। সংক্রমন রোধে বিলিয়েছেন প্রতিটি ঘরে ঘরে খাদ্যের পাশাপাশি মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, টিস্যু।এখানেই শেষ নয় পরিস্কার পরিচ্ছন্ন তায় ছোট-বড় সড়ক,পাড়া-মহলার অলি-গলি ড্রেন, হাট-বাজার সর্বত্রই জীবানু নাশক স্প্রে করানোর কাজটিও করেছেন নিয়মিত।নিজস্ব অর্থায়নে খাদ্য সামগ্রীর পাশাপাশি স্প্রে মেশিন কিনে প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ও মসজিদের মুসল্লিদের সুরক্ষার জন্য স্প্রে কাজ করে যাচ্ছেন।

ডিজিটাল পদ্ধতিতে ইতিমধ্যে তৈরী করেছেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলা কমিটি। ৯টি ওয়ার্ডে মোট একশত লোকের মাধ্যমে তিনি সুষ্ঠ ও সুচারুভাবে নিজের অভিজ্ঞতা ও দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে তিনি ইউনিয়নের সর্বসাধারনের সেবা করে যাচ্ছেন। সে কমিটির কাজও তদারকি করছেন তিনি নিজেই।

লক ডাউনের কারণে বেকার ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে খাবার পৌছে দিতে নিজ উদ্যোগে তৈরী করেছেন খাদ্য ভান্ডার। খাদ্য ভান্ডার থেকে চাল, ডাল, আলু, তেল ও লবন, সাবান সহ খাদ্যসামগ্রী প্যাকেট ভর্তি করে পৌছে দিচ্ছেন কর্মহীন, হত দরিদ্র বেকার পরিবার গুলোর মাঝে।

এ কাজের সহায়তায় সংযুক্ত করেছেন তার নিজস্ব তহবিলকে এবং সম্পৃক্ত করেছেন স্বেচ্ছায় সহযোগিতায় এগিয়ে আসা আগ্রহীদেরকেও ।

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল তার ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের জন-প্রতিনিধিদের নিয়ে গঠন করেছেন ওয়ার্ড কমিটি। এছাড়া প্রতিটি ওয়ার্ডে একটি করে স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন করেন স্বেচ্ছা সেবক কমিটির কাজ তদারকি করেন ওয়ার্ডের জন-প্রতিনিধিরা।একটি মনিটরিং সেল সার্বক্ষণিক ওয়ার্ড কমিটির কাজসহ সব কাজ তদারকি করছেন তিনি।

সরেজমিনে শার্শার বাগআঁচড়া ইউনিয়ন ঘুরে এমনি অসংখ্য সমাজসেবা মূলককাজের ধরণ চোখে পড়েছে। ৯টি ওয়ার্ড মেম্বরদের সাথে নিয়েই কাজ করছেন করোনা ভাইরাস মোকাবেলায়।বিচক্ষণ এ জন-প্রতিনিধি বাসা-বাড়ি থেকে বের হতে নিষেধ করলেও নিজেকে মানবতার সেবায় জনগনের পাশে দাড়াতে নিজের জীবনকে তুচ্ছ মনে করে মানবতার ফেরিওয়ালা সেজে ছুটে চলেছেন ইউনিয়নের এপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্তে।টার্গেট করোনায় কোন মানুষ যেন না খেয়ে থাকে।

তাছাড়া কোন কারণে কেউ অসুস্থ হয়ে পড়লে কিংবা জরুরী স্বাস্থ্য সেবা প্রয়োজন হলে সেটির ব্যবস্থাও রেখেছেন তিনি। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্মকর্তা ডা: ইউসুফ আলীর সাথে সার্বক্ষনিক যোগাযোগও রাখছেন এ বিষয়ে।

একান্ত সাক্ষাতে বেত্রাবতী নিউজ ২৪ কেচেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির জানান, সরকারী নির্দেশনা মেনে শার্শার সাংসদ আলহাজ্ব শেখ আফিল উদ্দীনের সার্বিক দিক নির্দেশনায় করোনাভাইরাস মোকাবেলায় আমি ও আমার দলীয় নেতাকর্মীরা সর্বাত্মক চেষ্টা করছি ।জনগন বলতে পারবে কতটুক্ করতে পেরেছি।ইউনিয়নের সবাইকে করোনা থেকে মুক্ত রাখায় জনপ্রতিনিধি হিসেবে আমার প্রধান কাজ। ওয়ার্ড মেম্বরাও সকলেই এ কাজে বিশেষ সহযোগিতা করছেন। মানুষের সেবা ও বিপদে পাশে দাড়ানো আমার বড় কাজ। আমার পিতামাতা আমাকে সেটাই শিখিয়েছেন। সমাজের সকলের উচিত একে অন্যকে সহযোগিতা করা।

ইউনিয়নবাসীর সুখে দুঃখে পাশে থাকার পাশাপাশি করোনায় চেয়ারম্যানের এমন মহৎ কর্মকান্ড রীতিমত মানবসেবায় এক মানবতার অনন্য রোল মডেল হিসেবে সর্বমহলে নিজ গুণের পরিচিতি মেলে ধরতে সক্ষম হয়েছেন।

সর্বমহলেও মানবতার ফেরিওয়ালা উপাধি পেয়েছেন চেয়ারম্যান ইলিয়াছ কবির বকুল।

 

 

 

 

 

 

 

 

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ২৫২ বার

[hupso]