শিরোনাম :

» করোনার কারণে দুর্নীতিপরায়ণদের প্রতি নমনীয় হওয়ার সুযোগ নেই’

প্রকাশিত: ০৫. জুন. ২০২০ | শুক্রবার

করোনা ভাইরাসের কারণে দুর্নীতিপরায়ণদের প্রতি নমনীয় হওয়ার সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করেছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

শুক্রবার (৫ জুন) দুদকের পরিচালক (জনসংযোগ) প্রণব কুমার ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ইকবাল মাহমুদ বলনে, করোনা মহামারি শুরুর সময়ই স্বাস্থ্যসামগ্রী ক্রয় প্রক্রিয়া শুরু হয়, টেন্ডার হয়। এসব ক্রয়ে অনিয়ম-দুর্নীতি কিংবা জাল-জালিয়াতির ঘটনা ঘটলে দুদক আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকে। এ ক্রয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে অনিয়ম-দুর্নীতি বা প্রতারণার কিছু খবর এসেছে। কমিশন এ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রতিবেদন সংরক্ষণ করছে। এছাড়া কমিশনের অভিযোগকেন্দ্র হটলাইন-১০৬ এ স্বাস্থ্যখাতের বেশকিছু অভিযোগ পাওয়া গেছে। অধিকন্তু কমিশনের গোয়েন্দা ইউনিটকেও এ বিষয়ে তথ্য সংগ্রহের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। যন্ত্রপাতি ক্রয়সহ স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি নিয়ন্ত্রণে কমিশন নির্মোহভাবে আইনি দায়িত্ব পালন করবে।

দুদক অনুসন্ধানের জন্য গ্রহণ করে তাহলে সংশ্লিষ্টদের তলব করা হবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, অনুসন্ধানকালে সংশ্লিষ্ট অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তা স্বাধীনভাবে দায়িত্ব পালন করেন। অপরাধীদের গ্রেফতার, তলব কিংবা বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা এ জাতীয় সব বিষয়ে অনুসন্ধানকারী কর্মকর্তাই সিদ্ধান্ত নেবেন।

‘স্বাস্থ্য ব্যবস্থাপনায় অনিয়ম-দুর্নীতি প্রতিরোধে কমিশন গঠিত প্রাতিষ্ঠানিক টিমও কাজ করেছে। গত বছর কমিশনের প্রাতিষ্ঠানিক টিমের একটি প্রতিবেদন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে জমা দেওয়া হয়েছে। কমিশন মনে করে এ প্রতিবেদনের সুপারিশগুলো বাস্তবায়ন করা হলে স্বাস্থ্যখাতের দুর্নীতি-অনিয়ম প্রতিরোধ করা সহজ হবে।’

ক্যাসিনোকাণ্ডে কমিশনের বিবেচনাধীন অনুসন্ধান বা তদন্তে শিথিলতা এসেছে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নরে জবাবে ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমরাও গণমাধ্যমে এ জাতীয় খবর দেখছি। তবে আমি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলতে পারি, কমিশন ক্যাসিনোকাণ্ডে যেসব অভিযোগ আমলে নিয়েছে সেসব বিষয়ে অনুসন্ধান বা তদন্তে শিথিলতার কোনো সুযোগ নেই।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৩৭ বার

[hupso]